শনিবার, মে ২৫, ২০২৪

কিশোরগঞ্জে আপন মেয়েকে টানা ৬ মাস ধর্ষণে অন্ত:সত্তা মেয়ে,পিতা আটক

আপডেট:

আশরাফুল ইসলাম তুষার,কিশোরগঞ্জ:
কিশোরগঞ্জে টানা ছয় মাস আপন পিতার ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা হয়েছে কিশোরী (১৪)।
এ ঘটনায় অভিযুক্ত বাবা মো. জিল্লুর রহমানকে (৪৮) আটক করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন (র‌্যাব) ১৪।

মঙ্গলবার (১৬ মে) ভোররাতে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার চৌদ্দশত ইউনিয়নের মধুরদিয়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাকে আটক করে র‍্যাব-১৪ সিপিসি-২ কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের সদস্যরা।

বিজ্ঞাপন

র‍্যাব-১৪ সিপিসি-২ কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার মেজর মো. শাহরিয়ার মাহমুদ খান এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, গত বছরের ৫ নভেম্বর সদর উপজেলার চৌদ্দশত ইউনিয়নের মধুরদিয়া এলাকায় জিল্লুর রহমান নামে এক ব্যাক্তি নিজ বসত ঘরে আপন মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। এ ঘটনা কাউকে না বলার জন্য ভুক্তভোগী মেয়েকে ভয় দেখায় ধর্ষক বাবা। ভয়ে কাউকে কিছু না বলার সুযোগে মেয়েকে টানা ছয় মাস একাধিকবার ধর্ষণ করে ওই বাবা।

মেজর মো. শাহরিয়ার মাহমুদ খান বলেন, ধর্ষণের ফলে শারীরিক পরিবর্তন ঘটলে বিষয়টি পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের জানায় ওই ভুক্তভোগী মেয়ে। পরে ওই মেয়ের বড় ভাই তাকে নিয়ে গিয়ে আল্ট্রাসনোগ্রাফ করান। আল্ট্রাসনোগ্রাফে ধরা পড়ে ভুক্তভোগী ওই মেয়ে ২৭ থেকে ২৮ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা। অন্তঃসত্ত্বা হবার বিষয়টি জানার পর গত সোমবার (১৫ মে) ভুক্তভোগী মেয়ের বড় ভাই কিশোরগঞ্জ মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরো বলেন, ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। যার ফলে আমরা আসামিকে আইনের আওতায় আনতে গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করি। মামলা দায়েরের ২৪ ঘন্টার মধ্যে আসামির অবস্থান নিশ্চিত করে আমরা অভিযান পরিচালনা করে তাকে আটক করি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটক জিল্লুর রহমান তার আপন নাবালিকা মেয়েকে ধর্ষণ করেছে বলে স্বীকার করে। জিল্লুর রহমানকে কিশোরগঞ্জ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

কিশোরগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ দাউদ বলেন, জিল্লুর রহমানকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:

সর্বাধিক পঠিত