সোমবার, ডিসেম্বর ৪, ২০২৩

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে করিমগঞ্জে আলোচনাসভা দোয়া ও গণভোজ

আপডেট:

আশরাফুল ইসলাম তুষার,কিশোরগঞ্জ:
সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী, স্বাধীনতার মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে করিমগঞ্জে আলোচনাসভা দোয়া ও গণভোজের আয়োজন করা হয়।
মঙ্গলবার রাতে করিমগঞ্জ উপজেলার আয়লা সমিতি বাজার মাঠে এ আলোচনাসভা দোয়া ও গণভোজের আয়োজন করে কিরাটন ইউনিয়নবাসী।
এতে প্রধান আলোচক ছিলেন স্বেচ্ছাসেবকলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রম বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার গোলাম কবির ভূইয়া।
সাবেক ইউপি সদস্য রুহুল আমিনের সভাপতিত্বে ও করিমগঞ্জ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ-সভাপতি মেহেদি হাশেম দিপুর পরিচালনায় আলোচনাসভায় বক্তব্য রাখেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ফরহাদ আহমেদ টিটুল সহ আরো অনেকেই।
সভায় প্রধান আলোচকের বক্তব্যে ব্যারিস্টার গোলাম কবির ভূইয়া বলেন,আগস্ট মাস শোকের মাস,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এতিম হওয়ার মাস।পশ্চিম পাকিস্তানিরা আমাদেরকে শাসনের নামে শোষণ করতো। তাদের শোষণের বিরুদ্ধে এ দেশের আপামর জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করে স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়ে যিনি এদেশটাকে স্বাধীন করলেন বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে এদেশেরই দোসরদের হাত থেকে আমরা বাঁচাতে পারলাম না। ষড়যন্ত্রকারীরা এখনো বসে নেই। যার প্রমাণ ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা করে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা।
তিনি আরো বলেন, একমাত্র জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আছেন বলেই এই দেশ উন্নয়নের সর্বোচ্চ চূড়ায় পৌঁছেছে।
তাই আওয়ামীলীগকে ভয় দেখিয়ে লাভ নেই।আওয়ামীলীগ কখনো পিছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় আসে নি।আওয়ামীলীগ গণতান্ত্রিক উপায়ে রাষ্ট্রক্ষমতায় গিয়েছে।আবারো বাংলার মানুষ জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ভোট দিয়ে ক্ষমতায় বসাবে বলে আমরা বিশ্বাস করি।
আলোচনাসভা শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট নিহত সকল শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়।পরে গণভোজের আয়োজন করা হয়।
এ সময় উপজেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের সহস্রাধিক নেতাকর্মী ও বিপুল সংখ্যক সাধারণ মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:

সর্বাধিক পঠিত