সোমবার, ডিসেম্বর ৪, ২০২৩

বিষয় ঃ নারী চরিত্র

আপডেট:

বিষয় ঃ নারী চরিত্র

লেখক ঃ ইঞ্জিঃ মোঃ সিরাজুল ইসলাম।

বিজ্ঞাপন

তাং ঃ ০৯.০৬. ২০২৩

 

বিজ্ঞাপন

নারী বিশ্বের বিস্ময়! আসলে কি তাই? নারীর কোমলতা, নম্রতা, সহনশীলতা, সহানুভূতি, সংবেদনশীলতা সব কিছু মিলে নারী! নারী কন্যা, সহধর্মিণী, বোন, মা, আবার কিশোরী যুবতী পৌঢ়, বৃদ্ধা!

 

নারীর এপিঠ ওপিঠ — নারী বদরাগী, জেদি, স্বার্থপর, কৃপণ, অবিবেচক, নিষ্ঠুর! নারী জেদি অবিবেচক তা কিছুটা প্রমান পাওয়া যায় আত্মহত্যার সংখ্যা দেখে।

ভারতের কথাই ধরেন, বিশ্বে ১০ আত্মহত্যা করলে তার ৪ জন ই ভারতীয় (বিবিসি জরিপ)! নিষ্ঠুরতার প্রমান বাসার কাজের আনডার এজ কিশোর কিশোরীর উপর পুরুষ যতটা যত্নবান নারী বেশী অত্যাচারী। গরম জলে ঝলসানো, বাথ রুমে আটকায় রাখা, খুন্তির স্যাকা এসব হর হামেশা ঘরের নারীরা ই বেশী করেন।

 

নারীর সহযোগিতা সফলতা আছে অনেক এবং মানুষের ভিতর নারী অত্যাচারিত অনেক অনেক বেশী। আমাদের দক্ষিণ এশিয়ার নারীরা বেশী নিগ্রহের শিকার! পাকিস্তান ভারত বাংলাদেশ আফগানিস্তান নারী ধর্ষণ হত্যা প্রচুর, বিয়ের পরে স্বামীর অত্যাচার অথবা শ্বশুর শাশুড়ী ননদ অত্যাচার, কেরাসিনে পোড়ানো, অফিস আদালতে বৈষম্য, চাকুরী তে যৌন হয়রানি, পথেঘাটে মাঠে পুরুষ কতৃক কুৎসিত প্রস্তাব, যানবাহনে ইভ টিসিং হরহামেশা!

 

ভালবাসার ক্ষেত্রে ও বৈষম্যের শিকার। ভালোবাসলো, মেয়েটা গার্জেন রাজী না, ঘর ছেড়ে এলে ২/৩ বছর পর ২/১ সন্তান হলে ভালোবাসা পানশে হয়ে গেলো, পুরুষ টা আর একটা প্রেম করলো।

কোন বিধবা বা যুবতীর ঘরে রাতে কোন পুরুষ ঢুকেছে, কেউ মেয়েটার পক্ষে নাই, হয়তো মেয়েটাই মারধর খেতে হলো! সন্তান না হলে নারী দোষী, বার বার মেয়ে হলে নারী দোষী, এটা যেন বিজ্ঞানের যুগে সমাধান হলেও অজানা বিধায় ৮০% ধর্ম চর্চিত পরিবারে মহিলাকে মেনে নিতে হবে নারীর ই দোষ, অনেকটা সাহিত্য জগতের “অশ্লীলতার” মত! লেখকের কলম বন্ধ করাই যেন উদ্দেশ্য অথচ এর থেকে Vulgar ব্যবহার করছেন শত লেখক আরো পঞ্চাশ বছর আগে —

বব কাট চুল করলেও নারীকে হয়রানি হতে হয়!

 

ধর্ষিত হলে, খুন হলে আগে নারীর চরিত্র কেমন ছিলো খোঁজা হয় শুধু দঃ এশিয়ার দেশগুলোতে! অপরাধ নারীরাও করেন কেউ বাধ্য হয়ে কেউ শখে যেমন বাংলাদেশের ডাঃ সাবরিনা! মিথ্যা কোভিড রিপোর্ট দিয়ে কোটি কোটি টাকা কামাই, ধরা পরার পর বিচারে

দীর্ঘসূত্রতা! আবার ফেনসিডিল বহন, হিরোইন পাচারে ও নারী ব্যবহার হচ্ছেন! ছেলেদের দ্বারা প্রতারিত হয়ে বেশ্যাবিত্তি করলে তাতে দোষ, মরলে কবর শ্মশানে নেয় না ধর্মবেত্তারা কারন মানুষ নয় বেশ্যা অতএব অশ্লীল!

রাতে ভোগীরা কিন্তু দিনে যারা নারী দেখলে রাম রাম করে রাতে তারাই নারী নিয়ে, বাংলা মদের সাথে কাজু আর পঠার মাংস চিবায়!

 

নারীর গর্জে উঠতে হবে, নারী নারীর শত্রু হওয়া চলবে না যেমন সতীন হওয়া, পরকিয়ায় মেতে আর এক নারীর ঘর ভাঙা ইত্যাদি থেকে বিরত থাকতে হবে। শ্বাশুড়ি কে বউর যত্ন বউ শাশুড়ী কে!

 

 

ভালো থাকেন সুস্থ থাকেন নিজ দেশকে ভালবাসেন।

বাংলায় একজন বিখ্যাত কবির জীবন দূঃখ হলো সহধর্মিণী, দারুন অসুখী ছিলেন দুজন! সহধর্মিণীর নাম লাবন্য আর কবির নাম জীবনানন্দ।

 

ক্যাপশন ঃ

একজন আদর্শ নারী, কবি লেখক সাহিত্য পরিষদ নির্বাহী “শ্যামলী মজুমদার “।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:

সর্বাধিক পঠিত