সোমবার, এপ্রিল ১৫, ২০২৪

বেনাপোলে সড়ক দুর্ঘটনায় স্কুল ছাত্রী নিহত-নিহতের ঘটনায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ

আপডেট:

মোঃ সাইদুল ইসলাম, বেনাপোল প্রতিনিধিঃ-বেনাপোল মেইন সড়কে বড় আঁচড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এর সামনে ট্রাক চাপায় মোছাঃ আনিকা আক্তার শরিফা (১৩) নামে এক স্কুল ছাত্রী নিহত হয়েছে।এই ঘটনায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ পালন করেছে বেনাপোল মরিয়ম মেমোরিয়াল বালিকা বিদ্যালয়ের বিক্ষুব্ধ শিক্ষক ,শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থীরা।বুধবার (o২ আগষ্ট ) দুপুর ১২টার বেনাপোল পৌরসভার গার্লস স্কুল ও কাষ্টমস্ হাউজের সামনের এলাকায় মহাসড়কের দুই পাশে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে বিক্ষুব্ধ শিক্ষক, শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থীরা। খবর পেয়ে বেনাপোল পোর্ট থানা-পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।জানা গেছে,পন্য ভর্তি একটি ট্রাক ভারতে রপ্তানীর উদেশ্যে বেনাপোল দিয়ে চেকপোস্ট রপ্তানী মাঠে যাচ্ছিল। একই সময় বেনাপোল বড় আঁচড়া গ্রামের ফেরী ব্যবসায়ী মোঃ আলমগীর হোসেনের মেয়ে ও বেনাপোল গার্লস স্কুলের সপ্তম শ্রেনীর মেধাবী ছাত্রী আনিকা বিপরীত দিক থেকে ভ্যানে করে স্কুলে আসছিল। এ সময় ওই ট্রাক সরাসরি ভ্যানকে চাপা দিলে আনিকার কোমড় এর উপর দিয়ে চাকা চলে গেলে স্কুল ছাত্রী ঘটনার স্থলেই নিহত হয়।পরে বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের অনুরোধে প্রায় এক ঘণ্টা পর শিক্ষার্থীরা মহাসড়ক থেকে তাদের অবস্থান তুলে নিয়ে ক্লাসে ফিরে যান।দুর্ঘটনায় নিহত আনিকার সহপাঠী জানান,আমরা আমাদের সহপাঠীর মৃত্যুর দৃষ্টান্ত মূলক বিচার দাবি করছি। আজ নিরাপদ সড়কের দাবিতে সবাই আন্দোলনে নেমেছি। সরকারের কাছে আমাদের একটাই দাবি সরকার যেন আমাদের জন্য নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করেন।বেনাপোল মরিয়ম মেমোরিয়াল বালিকা বিদ্যালয় এর প্রধান শিক্ষক রমজান আলী নিহত স্কুল ছাত্রীর পরিবারের ক্ষতিপূরণ,দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি, রাস্তা সংস্কার ও নিরাপদ সড়কের দাবি করেন তিনি।বেনাপোল পোর্ট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ কামাল হোসেন ভূঁইয়া জানান,সড়ক দুর্ঘটনায় স্কুলছাত্রী আনিকার নিহতের প্রতিবাদে ও বিচার দাবিতে তার সহপাঠীরা বেনাপোল-যশোর মহাসড়কে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছিল। আমরা তাদেরকে বুঝিয়ে মহাসড়ক থেকে সরিয়ে দিয়েছি। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। তবে ট্রাক ও চালক গ্রেপ্তার হওয়ায় পুলিশ এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:

সর্বাধিক পঠিত