সোমবার, এপ্রিল ১৫, ২০২৪

মিরসরাইয়ে শিশু ধর্ষণের ঘটনায় কমিশনারের মধ্যস্থতায় পার পেল বৃদ্ধ ধর্ষক 

আপডেট:

মিরসরাই প্রতিনিধি,

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে ৭ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে সাদেক (৬০) নামের এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে। শুক্রবার (২১ জুলাই) সকাল ১১ টায় উপজেলার চিনকিআস্তানা রেল স্টেশন সংলগ্ন সরকারী কোয়ার্টারে এই ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে। অভিযুক্ত সাদেক অবসরপ্রাপ্ত রেলওয়ের একজন কর্মকর্তা। তিনি দীর্ঘদিন ধরে সরকারি কোয়ার্টারে বসবাস করে আসছিলেন। তার বাড়ি উপজেলার জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের তিতা বটতল এলাকায়।

বিজ্ঞাপন

 

ভূক্তভোগী শিশু কন্যার বাবা জানান,আমি একজন রিক্সা চালক। শুক্রবার সকালে আমার মেয়েকে ঘর ঝাড়ু দেওয়ার কথা বলে ডেকে নিয়ে যায় সাদেক নামে ঐ বৃদ্ধ। কিছুক্ষণ পর ভিতর থেকে চিৎকার চেঁচামেচি শুনে আশেপাশের লোকজন আমাকে ডাকে। আমি তখন কোয়ার্টারে গিয়ে দেখি ভিতরে থেকে তালা মারা। পরে আমার কন্যাকে আমি উদ্ধার করি। এরপরে বিষয়টি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ লোকজনকে জানালে তারা থানা পুলিশকে জানানোর পরামর্শ দেন। থানায় সকাল ১২ টা নাগাদ এসে রাত বারোটায় বাড়িতে যাই। সন্ধ্যায় ৬ টা নাগাদ স্থানীয় কাউন্সিলর বাবুল, জলিল, তারেক সহ আরো কয়েকজন মিলে ১লাখ ২০ হাজার টাকায় আপোষ মীমাংসা করি।

বিজ্ঞাপন

 

অভিযুক্ত সাদেক এর কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছু জানি না। আমার ভাগিনাসহ বিষয়টি মীমাংসা করেছে ওরা জানে।

 

স্থানীয় কাউন্সিলর রফিকুজ্জামান বাবুল (প্রকাশ বাবলু কমিশনার) বলেন, আমি অন্য কাজে থানায় গিয়ে বিষয়টি দেখি। আপোষমীমাংসার বিষয়ে আমি কিছু জানি না। এক টাকাও খাই নাই আমি। বৈঠকের শেষ মুহূর্তে আমি গিয়েছিলাম।

 

জোরারগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক নিবাস কুমার দাশ বলেন, থানায় লিখিত কোন অভিযোগ দেওয়া হয়নি তবে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য অভিযুক্ত বৃদ্ধ কে থানায় আনা হয় এবং জিজ্ঞাসাবাদে কোন সত্যতা আমরা পাই নাই।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:

সর্বাধিক পঠিত