সোমবার, এপ্রিল ১৫, ২০২৪

যুক্তরাষ্ট্রে মিরসরাইয়ের যুবক খুন; প্রতিবাদে আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সংগঠনের মানববন্ধন

আপডেট:

মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি:

যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরি অঙ্গরাজ্যে বাংলাদেশী যুবক ইয়াজ উদ্দীন আহমেদ রমিম (২২) কে গুলি করে হত্যার প্রতিবাদে ‘আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান’ মিরসরাই উপজেলা শাখার আয়োজনে কালো ব্যাজ ধারন, মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (২১ জুলাই) বিকালে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা অফিস থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মিরসরাই পৌর সদর প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়। আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান উপজেলা শাখার সভাপতি নয়ন কান্তি ধুমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আবু জাফরের সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান উপজেলা শাখার উপদেষ্টা কামরুল হোসেন, মঘাদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি তোফায়েল উল্ল্যাহ চৌধুরী নাজমুল, আওয়ামী লীগ নেতা জামাল উদ্দিন, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তানভীর হোসেন চৌধুরী তপু, আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মিরসরাই শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক শাহনেওয়াজ মিয়া মিঠু, দপ্তর সম্পাদক নুর উদ্দিন, আশরাফুল বারী অপু প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন

আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মিরসরাই উপজেলা শাখার সভাপতি নয়ন কান্তি ধুম বলেন, ইয়াজ উদ্দীন আহমেদ রমিমকে যারা গুলি করে হত্যা করেছে তাদেরকে দ্রুত চিহ্নিত করে কঠোর শাস্তির আওতায় আনতে হবে এবং তার লাশ পরিবারের কাছে দ্রুত হস্তান্তর করতে হবে। রমিম হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে আমেরিকার দূতাবাস বরাবর একটি স্মারকলিপি প্রদান করা হবে। আমাদের ভাই রমিমের হত্যাকারীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা না হলে আমরা দেশের সকল মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা বাংলাদেশে অবস্থিত আমেরিকার দূতাবাস ঘেরাও করবো। আমেরিকায় এই পর্যন্ত যত বাংলাদেশি খুন হয়েছে সবগুলো খুনের ন্যায় বিচার দাবী করেন তিনি। তিনি বক্তব্যে যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসনের প্রতি সেখানে বসবাসরত বাংলাদেশের সকল নাগরিকের সুরক্ষার দাবিও জানান। তিনি সকল বক্তার সাথে একাত্বতা প্রকাশ করে বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে এখনো প্রকাশ্য দিবালোকে মানুষ খুন হয়, আর তারা বাংলাদেশের মানবাধিকার নিয়ে পড়ে আছে। তাদের পুলিশ বাহিনী থেকে আসামী হাতকড়া অবস্থায় পালিয়ে যায় আর আমার দেশে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জঙ্গী, সন্ত্রাসবাদ দমনে সক্ষমতার প্রমান দিয়েছে। ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে আমাদের পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধারা মার্কিনীদের অস্ত্র খালাস প্রতিরোধ করে মানবাধিকার লঙ্ঘনের শিক্ষা দিয়েছিল। আজও মার্কিনীরা নিয়মিত এইভাবে মানবাধিকার লঙ্গন করে চলেছে, তাই মানবাধিকারের শিক্ষা বাংলাদেশের কাছেই শিখা উচিত বলে মনে করেন নয়ন ধুম।

প্রসঙ্গত: গত ১৮ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরি অঙ্গরাজ্যে চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের ইয়াজ উদ্দীন আহমেদ রমিম নামের এক যুবককে গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। সন্ত্রাসীরা তার সাথে থাকা গাড়ি ও টাকা ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্য মাথায় গুলি করেছিলো বলে জানা গেছে। রমিম মিরসরাই উপজেলার করেরহাট ইউনিয়নের বাদশাহ মিয়া সওদাগর বাড়ীর মৃত বীর মুক্তিযোদ্ধা সামছুদ্দিন আহমেদের দ্বিতীয় পুত্র।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:

সর্বাধিক পঠিত