সোমবার, এপ্রিল ১৫, ২০২৪

সানন্দবাড়ীতে অভিযান চালিয়ে খাস জমি উদ্ধার

আপডেট:

  • ফরিদুল ইসলাম ফরিদ, দেওয়ানগঞ্জ(জামালপুর) প্রতিনিধিঃ জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার চরআমখাওয়ায় ১ একর ৪৭ শতক সরকারি খাস জমি উদ্ধার করা হয়।

জানা যায়, এসব জমি অবৈধভাবে দখল করে সেগুলোতে পুকুর ও কিছু অবকাঠামো গড়ে তোলা হয়েছে। সানন্দবাড়ী বাজার সংলগ্ন এই খাস জমি উদ্ধার করেন দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ মাহবুব হাসান।

(৬ আগষ্ট) রবিবার উদ্ধার করা জমিতে লাল নিশান ও সরকারি ব্যানার স্থাপন করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্র জানা যায়, দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার চরআমখাওয়া ইউনিয়নের সানন্দবাড়ী মৌজায় মোট ১একর ৪৭ শতক সরকারি খাস জমি উদ্ধার করা হয়। এর মধ্যে সানন্দবাড়ী মৌজা ১ নম্বর বি আর এস খতিয়ানের ১০০৩৫ দাগ থেকে ০.৭৭ একর, ১নম্বর বি আর এস খতিয়ানে দাগ নং ১০০৬৭ জমির পরিমাণ ০.৪৭ একর, ১নং খতিয়ান নম্বরের ১০০৬৮দাগে ০.২৩ একর জমি রয়েছে। ওই খাস জমিগুলো দীর্ঘদিন ধরে বেশি অংশে পুকুর ও জলাশয় পরিনত এবং তার সাথে কিছু ঘরবাড়ী ছিল।

দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইএনও) কামরুন্নাহার শেফার নির্দেশে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর নেতৃত্বে অবৈধদখলে থাকা সরকারি খাস জমি উদ্ধারে অভিযান পরিচালনা করেন।

বিজ্ঞাপন

চরআমখাওয়া ইউনিয়ন ভূমি অফিস থেকে ওই খাস জমি দীর্ঘ সময় ধরে সার্ভেয়ার দিয়ে মাপজরিপ শেষে সীমানা নির্ধারণ করে লাল নিশান স্থাপন করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত জমির বতর্মান বাজার মূল্য ৫ কোটি টাকার বেশি হবে।

জমি উদ্ধার অভিযানে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার ( ভূমি) মোঃ মাহবুব হাসান, সার্ভেয়ার আব্দুর রাজ্জাক , অফিস সহকারী ফখরুল ইসলাম, অফিস সহকারী জিয়া শাহ সুলতান, চরআমখাওয়া ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী মোঃ ফজলুল করিম( মামুন) দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানার নির্দেশক্রমে সানন্দবাড়ী তদন্ত কেন্দ্রের (ডি এস বি) আব্দুর রাকিব খানসহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী মাজিস্ট্রেট (ভূমি) মাহবুব হাসান বলেন, ভুমি অফিসের কাগজপত্রে ওই জমিগুলো খাস হিসেবে রয়েছে। এর আগে সরেজমিনে গিয়ে ওই সরকারি খাস জমি সার্ভে করা হয়। এ সময় দেখা যায় সরকারি খাস জমিতে দুটি পুকুর ও সামান্য বাসাবাড়ী গড়ে তুলেছেন। আজ অভিযান পরিচালনা করে সরকারি খাস জমি চিহ্নিত করে লাল সীমানা নিশান ও ব্যনার স্থাপন করা হয়।

উদ্ধার করা ওই খাস জমিতে সরকারিভাবে মার্কেট কিংবা সরকারি স্থাপনা গড়ে তোলার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হবে বলে জানান।

তিনি আরও বলেন, উদ্ধার হওয়া জমিতে অনুপ্রবেশ ঠেকাতে সার্বক্ষণিক ভূমি অফিসের নজরে থাকবে। ইতোমধ্যেই নিষেধাজ্ঞাসহ ২টি সাইনবোর্ড টানানো হয়েছে। এরপরেও যদি অবৈধভাবে কেউ এ জায়গায় প্রবেশ বা দখল করার চেষ্টা করে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:

সর্বাধিক পঠিত